মোবাইল বা টিভিতে চোখ রেখে খাওয়া কতটা বিপদ!

by glmmostofa@gmail.com

নিউজ ডেস্ক:

সাতান্ন বছরের নারি রাকেয়া বিবি। তিনি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বসিরহাটের বাসিন্দা। টিভি দেখতে দেখতে খাচ্ছিলেন। এসময় তার গলায় ৪ সেন্টিমিটার লম্বা মাছের কাঁটা ঢুকেছিল! আটকে ছিল স্টারনোক্লেইডোমাসটয়েড পেশিতে। সেখানে পুঁজ জমে, সংক্রমণ হয়ে যাচ্ছেতাই অবস্থা। গিলতে পারছিলেন না কিচ্ছু। তারপর এক দু’দিন নয়। টানা দশদিন তা আটকে ছিল গলায়! কাটা গলানোর জন্য রোগী হোমিওপ্যাথিক ওষুধ খাচ্ছিলেন। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি দ্রুত তার অবস্থার অবনতি হতে থাকে। তাকে দ্রুত ভর্তি করে নেওয়া হয় এসএসকেএমের ইনস্টিটিউট অফ অটো রাইনো ল্যারিঙ্গোলজি বিভাগে। প্রথমে তাকে অ্যান্টিবায়োটিক দিয়ে সংক্রমণ কমানো হয়। পরে অস্ত্রোপচার করা হয়। এ যাত্রায় প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন রোকেয়া বিবি। হাসপাতালের ডিরেক্টর ডা. অরুণাভ সেনগুপ্তের তত্ত্বাবধানে এখন তার চিকিৎসা চলছে।
চিকিৎসকদের পরামর্শ, গলায় কিছু ঢুকলে দ্রুত এক্স-রে করান। কাঁটা ভেতরে থেকে গেলে নড়াচড়া কিংবা নানা আঘাতে গলার ভিতরের অংশে রক্তপাত হয়ে সেপ্টিসেমিয়া হয়ে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।
এসএসকেএম হাসপাতালের ইএনটি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. দেবাশিস বর্মন জানিয়েছেন, কাঁটা তেমন বড় হলে সহজে গলে না। এদিকে শরীরের ভিতরের অংশ তা ফুটো করে দেয়। সেখান থেকে সংক্রমণ হয়ে সেপটিসেমিয়া পর্যন্ত হতে পারে।
তিনি জানান, হাসপাতালে মাছের কাঁটা গলায় বিঁধে রোগী আসার সংখ্যা উত্তরোত্তর বাড়ছে। টিভিতে চোখ রেখে খেতে গিয়েই ঘটছে এমন বিপত্তি। অনেকে শিশুকে মোবাইলে ভিডিও দেখিয়ে খাওয়ান।

হাসপাতালে আরেক ডা. সায়ন হাজরা জানিয়েছেন, সাধারণত কাঁটা বের করার জন্য সি আর্ম এক্স-রে ব্যবহার করা হয়। সাধারণত এই যন্ত্র হাড়ের অস্ত্রোপচারে ব্যবহার করা হয়। এই এক্স রে-র মাধ্যমে জানা যায়, কতটা গভীরে ঢুকেছে কাঁটাটা। এরপর গলার ত্বকের একটা অংশ কেটে বের করা হয় ওই মাছের কাঁটা। কিন্তু রাকেয়া বিবির ক্ষেত্রে তা করা সম্ভব হয়নি। গলার অংশে ত্বকের চামড়া কেটে কাঁটাটিকে বের করা হয়।
ডা. দেবাশিস বর্মনের পরামর্শ, অভিভাবকদের বলব, এমন ভুল করবেন না। মাছের কাঁটা গলায় আটকে গেলে হোমিওপ্যাথি ওষুধ খান অনেকে। কাঁটা কোথায় বিঁধে রয়েছে সেটা দেখা প্রয়োজন। গলায় কাঁটা ঢুকলে আগে এক্স-রে করান। বসে বসে হোমিওপ্যাথি খাবেন না। তেমন জায়গায় কাঁটা ঢুকলে সহজে গলবে তো না-ই। উলটে কাঁটার খোঁচায় গলার ভিতরের অংশ ক্ষতবিক্ষত হয়ে সংক্রমণ ছড়াতে পারে। যেমনটা হয়েছিল রোকেয়া বিবির। গলার মাসলে আটকে ছিল কাঁটাটা। হোমিওপ্যাথি খেয়েও বেরোয়নি। এদিকে ১০/১২ দিন পেরিয়ে গিয়েছে। রোগী ছুটে আসেন হাসপাতালে।
সাধারণত গলায় কিছু আটকে গেলে ইসোফেগাসস্কোপি করে বের করা হয়।

You may also like

সম্পাদক : হামীম কেফায়েত

গ্রেটার ঢাকা পাবলিকেশন নিউমার্কেট সিটি কমপ্লেক্স ৪৪/১, রহিম স্কয়ার

নিউমার্কেট, ঢাকা ১২০৫

যোগাযোগ : +8801712813999
ইমেইল : news@pran24.com