কানের ময়লা কতটা বিপজ্জনক?

by glmmostofa@gmail.com

নিউজ ডেস্ক।।   

 চিকিৎসকদের পরিভাষায় কানের খৈলকে ( cerumen )  সেরুমেন বলে। একে সাধারণত কানের ময়লা বলে ডাকা হলেও এর প্রয়োজীয় ভুমিকা আছে। এটি মানুষের  কর্ণকুহরে নিঃসৃত একপ্রকার হলুদাভ নিঃসরণ। কর্ণকুহরের বাইরের দিকের এক তৃতীয়াংশের দেওয়ালের পরিবর্তিত এপোক্রিন ঘর্মগ্রন্থি ও সেবাম গ্রন্থির মিশ্রিত ক্ষরণই সেরুমেন। কর্ণকুহরের ত্বকের সুস্বাস্হ্য বজায় রাখে। তবে অনেকেরই—প্রশ্ন,   কানের ময়লা কি পরিষ্কার করব? নাকি এমনিতেই পরিষ্কার হয়ে যাবে? আর পরিষ্কার না করলে কানে কোনো সমস্যা হবে না তো?

তাই এ ব্যাপারে বিশেষজ্ঞরা  বলেন…অনেকেই ভাবেন, ময়লা জমে কানের ক্ষতি হতে পারে। কান চুলকানো বা শিরশির করার ঝামেলা তো আছেই। তবে এই ধারণা পুরোপুরি ভুল। নাক, কান ও গলা বিশেষজ্ঞরা বললেন, কানের ময়লা সাধারণত কোনো ক্ষতি করে না। বরং এটি কান সুরক্ষিত রাখে। কানের ভেতরে পাইলোসেবাসিয়াস গ্ল্যান্ড থেকে নির্গত সেরুমিনই হচ্ছে এই ‘ময়লা’, যা ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাকের আক্রমণ থেকে কানকে সুরক্ষিত রাখে।

বিশেষজ্ঞরা বললেন, কানের ময়লা সাধারণত কোনো ক্ষতি করে না। বরং এটি কান সুরক্ষিত রাখে। কানের ভেতরে পাইলোসেবাসিয়াস গ্ল্যান্ড থেকে নির্গত সেরুমিনই হচ্ছে এই ‘ময়লা’, যা ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাকের আক্রমণ থেকে কানকে সুরক্ষিত রাখে।

 চিকিৎসকরা জানান, কানের নালিতে সামনের দিকে থাকা এই পাইলোসেবাসিয়াস গ্ল্যান্ডের ক্ষরণের পাশাপাশি এর সঙ্গে বাইরের ধুলাময়লা মিশে যায়। এর ফলে কানে জমা হয় ময়লা বা খইল। এটা আসলে আমাদের শরীরের প্রতিরক্ষারই অংশ। চলাফেরার সময়ে বাইরে থেকে কোনো ধরনের পোকামাকড় কানে ঢুকতে গেলেও এই খইল বাধার সৃষ্টি করে। সাধারণত কানে যখন ময়লা বেশি জমে যায়, তখন কান সেটা আপনা-আপনি বাইরের দিকে ঠেলে দেয়। কোনো কোনো সময় ময়লা বাইরে না-ও আসতে পারে। সে ক্ষেত্রে তা বের করে আনা যায়।তবে অনেক সময় কানের ময়লা বেশি শক্ত হয়ে যায়। তখন সহজেই কান থেকে বের হয় না। সে ক্ষেত্রে সামান্য পরিমাণ অলিভ অয়েল দিয়ে কটনবাটের মতো নরম কিছুর সাহায্যে আলতো করে বের করে নিতে পারেন। প্রয়োজনে ডাক্তারের পরামর্শ নিন। তবে হুটহাট করে কানের মধ্যে খোঁচানো একেবারেই ঠিক নয়। অনেকেই রাস্তার পাশে বসে দিব্যি কান পরিষ্কার করিয়ে নেন। এটা ভীষণ বিপজ্জনক! কান যদি পরিষ্কার করতেই হয়, নিজে করুন বা বাসার কারও সাহায্য নিন। তবে শেষ কথা একটাই—কান নিজেকে নিজেই পরিষ্কার রাখে বলেও জানান বিশেষজ্ঞরা।

You may also like

সম্পাদক : হামীম কেফায়েত

গ্রেটার ঢাকা পাবলিকেশন নিউমার্কেট সিটি কমপ্লেক্স ৪৪/১, রহিম স্কয়ার

নিউমার্কেট, ঢাকা ১২০৫

যোগাযোগ : +8801712813999
ইমেইল : news@pran24.com